Wednesday, June 26, 2024
Homeদেশজুড়েশাহজাহান ওমরের নির্বাচনী সভায় থাকতে বাধ্য করা হয় শিক্ষকদের

শাহজাহান ওমরের নির্বাচনী সভায় থাকতে বাধ্য করা হয় শিক্ষকদের

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার সাতদিনের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কর্মশালায় আসা মাধ্যমিক ও মাদরাসার সহকারী শিক্ষকদের নির্বাচনী সভায় থাকতে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার (২৪ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টায় কর্মশালা শেষ হওয়ার পর মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ সহকারী শিক্ষকদের শাহজাহান ওমরের নির্বাচনী সভায় থাকতে বাধ্য করেন।

কর্মশালায় আসা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদরাসার একাধিক শিক্ষক বলেন, রোববার থেকে ৭ দিনের এই বিষয় ভিত্তিক কর্মশালার প্রথম দিন ছিল আজ। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কর্মশালা চলবে। আজকে কর্মশালা শেষ হওয়ার পরও শাহজাহন ওমরের সভায় থাকতে মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ আমাদের বাধ্য করেন। তারা আধঘণ্টা আগেই কর্মশালার কাজ শেষ করে স্কুলের গেটে তালা লাগিয়ে দেয়।

রাজাপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এ.এইচ.এম খায়রুল আলম সরফরাজ, সাধারণ সম্পাদক জিয়া হায়দার খান লিটন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজু প্রমুখ।

রাজাপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জাহিদুল ইসলাম এ সভায় সভাপতিত্ব করেন। বিকেল ৫টায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহজাহান ওমর বলেন, বিএনপিতে তিনিই ছিলেন এনার্জি হর্স। রাজাদের যুদ্ধ করতে হলে শক্তিশালী ঘোড়া দরকার। তিনি চলে আসায় বিএনপিতে আর কোনো শক্তিশালী ঘোড়া নেই।

এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, কর্মশালা শেষে শিক্ষকদের নিয়ে এখানে সভায় ওমর সাহেব বক্তব্য দেন। এখানে বাধ্য করার প্রশ্নই উঠে না। কর্মশালার শিক্ষকরা স্বেচ্ছায় এ মতবিনিময় সভায় উপস্থিত হয়েছেন। সভায় ওমর সাহেব নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

Most Popular

Recent Comments