Monday, June 27, 2022
Homeখেলাধুলা‘শৈশবের ভালোবাসার ক্লাবেই’ ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন ওজিল

‘শৈশবের ভালোবাসার ক্লাবেই’ ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন ওজিল

জার্মানির বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার মেসুত ওজিল এখন খেলছেন তুরস্কের ক্লাব ফেনারবাচে। ২০২১ সালে দীর্ঘ আট বছর আর্সেনালে কাটানোর পর অনেকটা নিভৃতে বিদায় নিয়ে তুরস্কে ঘাঁটি গাড়েন তুর্কি বংশোদ্ভূত এই ফুটবলার। বর্তমানে ফেনেরবাচের অধিনায়কত্বও করছেন তিনি। সম্প্রতি তার ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন চাউর হচ্ছিল, তবে ওজিল নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রকাশের মাধ্যমে সেসব জল্পনা-কল্পনার ইতি টেনেছেন।

সম্প্রতি তার ভবিষ্যৎ নিয়ে নতুন করে গুঞ্জন শুরুর পর বুধবার (১ জুন) সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ওজিল এক টুইটে জানিয়েছেন, ‘সম্প্রতি আমার ক্যারিয়ারের ওপর ওঠা কিছু প্রশ্নের জবাব আমি বিবৃতির মাধ্যমে দিয়েছি। আমার শৈশবের ভালোবাসার ক্লাব ফেনারবাচের সঙ্গে সাড়ে তিন বছরের চুক্তি করে ক্যারিয়ারের একটি লক্ষ্য পূরণ করেছি। এই চুক্তির প্রথম ছয়মাসে তো কোনো টাকাকড়িও পাইনি।’


‘আমি আবারও জোর দিয়ে বলছি, ফেনারবাচ ছাড়া অন্য কোনো ক্লাবের হয়ে আমি ক্যারিয়ারের ইতি টানব না। চুক্তির বাকি সময়টায় আমি শুধুই চুবুকলুর জার্সি পরতে চাই। আমার সিদ্ধান্ত পরিষ্কার এবং চূড়ান্ত।’

জার্মানিতে তুর্কি অভিবাসী পরিবারে জন্ম নেওয়া ওজিল শালকের হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। শালকেতে দুই মৌসুম কাটিয়ে আরেক জার্মান ক্লাব ওয়ের্ডার ব্রেমেনে পাড়ি জমান তিনি। সেখানে চার মৌসুম খেলে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন এই জার্মান মিডফিল্ডার। সেখানে আরও চার মৌসুম কাটিয়ে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনালে যান তিনি। ক্যারিয়ারে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় গানারদের হয়েই মাঠ মাতিয়ছেন তিনি। এমিরেটস স্টেডিয়ামে তার শুরুটা দুর্দান্ত হলেও শেষটা মোটেও মধুর ছিল না। ক্লাব কর্তৃপক্ষ এবং কোচদের সঙ্গে দূরত্বে একসময় দল থেকে প্রায় নির্বাসিতই হয়ে গিয়েছিলেন।

২০১৪ বিশ্বকাপে জার্মানিকে বিশ্বকাপ জেতানো ওজিলের জাতীয় দল থেকে বিদায়টাও ছিল বিষাদময়। ২০১৮ বিশ্বকাপে জার্মানির ভরাডুবির পর জার্মান কর্তাদের রোষের মুখে পড়েন তিনি। তার আগে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানের সঙ্গে ছবি তুলেও জার্মানিতে ব্যাপক সমালোচিত হয়েছিলেন। ২০১৮ সালের জুলাইয়ে মাত্র ২৯ বছর বয়সেই আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলে দেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments