Wednesday, June 29, 2022
Homeখেলাধুলাহার নিয়ে যা বললেন বাংলাদেশ কোচ

হার নিয়ে যা বললেন বাংলাদেশ কোচ

আ.জা. স্পোর্টস:

নেপালের ত্রিদেশীয় ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেও ট্রফি জিততে পারেনি বাংলাদেশ। স্বাগতিক নেপাল ২-১ গোলে ম্যাচ জিতে নিজেদের কাছেই রেখে দিয়েছে ট্রফি। ট্রফি জিততে না পেরে অনেকে হতাশ হলেও দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে অবশ্য অসন্তুষ্ট নন! দল থেকে আগেই ঘোষণা ছিল, এই টুর্নামেন্ট হচ্ছে নতুনদের পরখ করে নেওয়ার মঞ্চ। তাই ‘শিক্ষা সফরে’ এসে পুরো দলকে পরখ করতে পেরে সন্তুষ্ট বাংলাদেশ কোচ। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ দলের ঢাকায় আসার কথা আছে। জামাল-সাদরা এসে নিজ নিজ ক্লাবে যোগ দেবেন। তবে ডে ফিরে যাবেন লন্ডনে। ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে নানান সমালোচনা হলেও জেমি ডে কাঠমান্ডু থেকে ফোনেবলেছেন, ‘ফাইনালে হার নিয়ে কে, কী বললো- এ নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন নই। শুধু বলতে চাই প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ চার খেলোয়াড়ই সামনের দিকে খেলেছে।’ বাকিরা যেখানে হতাশা প্রকাশ করছেন, সেখানে কোচ নতুন খেলোয়াড়দের পরখ করতে পেরে খুশি। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দলে অভিষেক হয়েছে পাঁচ ফুটবলারের। তিনটি ম্যাচেই তাদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলানো হয়েছে। ডে তাই মনে করিয়ে দিলেন, ‘আগেই বলেছি আমরা নেপালে এসেছি নতুন খেলোয়াড়দের বাজিয়ে দেখতে এবং অভিজ্ঞতা নিতে। সে হিসেবে সব ঠিক আছে।’ কাঠমান্ডুতে ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ দলের কাছে প্রত্যাশা একটু বেশি ছিল। সবাই আশা করেছিল, ট্রফি জিতবে জামাল ভ‚ঁইয়ারা। তবে ডে এই ফাইনালে উঠাটাকে দেখছেন ভিন্নভাবে, ‘এটাই জীবন। হ্যাঁ,আমরা এই সপ্তাহে যা দরকার ছিল, তা পেয়েছি। ফাইনালটি ছিল বোনাস। তবে আমাদের জিততে পারলে ভালো লাগতো।’ তিন ম্যাচে বাংলাদেশ দুটি গোল করেছে। একটি ছিল আত্মঘাতী। এর জন্য ডে মনে করছেন, ঘরোয়া ফুটবলে খেলোয়াড়দের পজিশনই বড় কারণ। তার ভাষায়, ‘অথচ চার সর্বোচ্চ গোলদাতা (প্রিমিয়ার লিগ) এই খেলায় শুরু থেকে খেলেছে। আর এটিই বিপিএলের মান সম্পর্কে বলে দেয় যে, খেলোয়াড়রা সঠিক অবস্থানে খেলছে না, এটি একটি সমস্যা।’ নেপালে বাংলাদেশ দলের পাসিং, ড্রিবলিংসহ একাধিক জায়গায় ঘাটতি চোখে পড়েছে। প্রতিপক্ষের গোলকিপারকে সেভাবে কোনও পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি সুফিল-সুমন রেজারা। তিন বছর ধরে জাতীয় দলের সঙ্গে আছেন ডে। তার অধীনে দল কতটুকু শিখতে পারলো? এই জায়গায় তার মূল্যায়ন, ‘যদি খেলোয়াড়রা কম বয়সে ঠিকমতো প্রশিক্ষিত না হয়, তবে এই সমস্যা সব সময়ই থাকবে। তরুণ খেলোয়াড়দের সঠিকভাবে প্রশিক্ষণ শুরু করা দরকার। এই তরুণ খেলোয়াড়দের ছোটবেলা থেকেই স্ট্রাইকার পজিশনে খেলানো উচিত, যাতে তারা অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments