Thursday, July 18, 2024
Homeজামালপুর২৪ ঘন্টায় ৫ ঘন্টাও বিদ্যুৎ পাচ্ছেনা মাদারগঞ্জবাসী : গ্রাহদের ক্ষোভ

২৪ ঘন্টায় ৫ ঘন্টাও বিদ্যুৎ পাচ্ছেনা মাদারগঞ্জবাসী : গ্রাহদের ক্ষোভ

মাদারগঞ্জ সংবাদদাতা : গরম পড়তে নানা পড়তেই জামালপুরের মাদারগঞ্জে তীব্র আকার ধারন করেছে বিদ্যুৎ এর লোডশেডিং। ২৪ ঘন্টায় ৫ ঘন্টাও মিলছে না বিদ্যুৎ অভিযোগ গ্রাহকদের। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে শিশু, বৃদ্ধসহ সকল শ্রেণীর মানুষ। জানা গেছে, উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় বিদ্যুৎ এর গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ১ লাখ। ১ লাখের জন্য প্রতিদিন বিদ্যুৎ প্রয়োজন সাড়ে ১৪ মেগাওয়াট। কিন্তু বরাদ্দ পাচ্ছে মাত্র ৪-৫ মেগাওয়াট। যা চাহিদার তুলনায় অনেক কম। উপজেলার চরপাকেরদহ ইউনিয়নের ঝাড়কাটা এলাকার ফজলুল হক আরমান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন,দিনেও বিদ্যুৎ পাচ্ছিনা রাতেও না। এত ভোগান্তিতে কখনো পড়তে হয়নি। এমন লোডশেডিং এ জীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। হাটমাগুড়া এলাকার রাশেদ মিল্টন বলেন,একদিকে গরম অন্যদিকে তীব্র লোডিশেডিং এতে করে খুব কষ্টে আছি। একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফুল চার্জ করতে পারিনা। তাহলে বুঝেন কতটা বাজে অবস্থার মধ্যে আছি। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, মাদারগঞ্জে এ বছর ১৬ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে বোরা ধান রূপন করা হয়েছে। সময়মত সেচ না দিতে পেরে শঙ্কায় রয়েছেন উপজেলা বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষকরা। সুখনগরী গ্রামের কৃষক আজাদ মিয়া ঝন্টু বলেন,লোডশেডিং এর জন্য ঠিকমত সেচ দিতে পারছি না। জমি শুকিয়ে যাচ্ছে এতে ধানের ক্ষতি হচ্ছে। সিংদহ এলাকার তরুণ কৃষক জেমি রহমান বলেন,এভাবে চলতে থাকলে বোরো ধান নষ্ট হয়ে যাবে। এতে হাজার হাজার কৃষক ক্ষতিগ্রস্থ হবেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ শাহাদুল ইসলাম বলেন,সময়মত পানি না দিলে বোরো ধানের ক্ষতির সম্ভবনা থাকবে। তবে আমরা বিদ্যুৎ বিভাগকে বিষয়টি অবহিত করেছি তারা আশ্বাস দিয়েছেন। খুব শিঘ্রই সমস্যার দুর করবেন। জামালপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি মাদারগঞ্জ জোনাল অফিসের ডিজিএম প্রকৌশলী মোঃ ওবায়দুল্লাহ আল মাসুম বলেন, এ উপজেলায় প্রায় ১ লাখ গ্রাহকের জন্য বিদ্যুৎ এর প্রয়োজন সাড়ে ১৪ মেগাওয়াট কিন্তু আমরা পাচ্ছি মাত্র ৪-৫ মেগাওয়াট। এর ফলে লোডিশেডিং হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছি। আশা করি অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে সমাধান হবে।

Most Popular

Recent Comments