ঢাকা   বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  সদর উপজেলাবাসীর আশার আলো উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদা ইয়াছমিন (জামালপুরের খবর)        বকশিগঞ্জ উপজেলায় স্থানীয় সরকার ও প্রশাসনের সাথে জনতার সংলাপ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে বিতর্ক প্রতিযোগিতা (জামালপুরের খবর)        খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছেনা সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জামালপুরের খবর)        বাল্যবিবাহ মুক্ত ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করায় ইসলামপুরে র‌্যালি ও মানববন্ধন (জামালপুরের খবর)        দেওয়ানগঞ্জে জাতীর পিতার জন্ম শত বার্ষিকী উপলক্ষে র‌্যালি, মানববন্ধন, গন স্বাক্ষর ও শপথ গ্রহন (জামালপুরের খবর)        কুষ্ঠ রোগীদের ওষুধ তৈরী ও বিনামূল্যে বিতরণে স্থানীয় কোম্পানীগুলোর প্রতি আহবান প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)        খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আসল রিপোর্ট বদলে ফেলা হচ্ছে: ফখরুল (রাজনীতি)        অভিযোগ প্রমাণে শাজাহান খানকে ফের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম ইলিয়াস কাঞ্চনের (ঢাকা)        আওয়ামী লীগে কোনও দূষিত রক্ত থাকবে না: ওবায়দুল কাদের (রাজনীতি)      

শূন্য রানে অভিষেক ম্যাচেই ৬ উইকেট!

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:06:04 pm, 2019-12-02 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

আ.জা. স্পোর্টস:

আইসিসির সব সদস্য রাষ্ট্রকে টি-টোয়েন্টি মর্যাদা দেওয়ার পর বিচিত্র সব রেকর্ড হচ্ছে নিয়মিত। বিশেষ করে মেয়েদের ক্রিকেটে। অঞ্জলি চাঁদ গড়লেন তেমনই অবিশ্বাস্য এক কীর্তি। অভিষেক ম্যাচে নেপালের এই বোলার ৬ উইকেট নিয়েছেন কোনো রান না দিয়েই! দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে (এস এ গেমস) সোমবার মালদ্বীপের মেয়েদের বিপক্ষে এই রেকর্ড গড়েন অঞ্জলি। পোখারায় আসরের প্রথম ম্যাচে ২৪ বছর বয়সী এই বোলারের বোলিং ফিগার ছিল ২.১-২-০-৬! মেয়েদের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সেরা বোলিংয়ের আগের রেকর্ড ছিল মালয়েশিয়ার ম্যাস এলিসার। গত জানুয়ারিতে চীনের বিপক্ষে এই লেগ স্পিনার ৬ উইকেট নিয়েছিলেন ৩ রানে। রান না দিয়ে সবচেয়ে বেশি উইকেটের আগের রেকর্ড ছিল তাঞ্জানিয়ার বোলার নাসরা সাইদির। গত জুনে মালির বিপক্ষে তিনি ৫ উইকেট নিয়েছিলেন শূন্য রানে। এবার নেপালের অঞ্জলি যে বোলিং উপহার দিলেন, ছেলে-মেয়ে মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কোনো সংস্করণেই এমন কিছুর নজির নেই আর। অঞ্জলির বোলিং ফিগার থেকেই অবশ্য প্রতিপক্ষ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়। আনকোরা মালদ্বীপের মেয়েদের এটিই ছিল প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ। ১০.১ ওভারে তারা গুটিয়ে যায় ১৬ রানে। রান তাড়ায় নেপাল জিতে যায় ৫ বলেই। এই ১৬ রান মেয়েদের টি-টোয়েন্টিতে সর্বনিম্ন স্কোর নয়। ১০৪টি সদস্য রাষ্ট্রকে টি-টোয়েন্টি মর্যাদা দেওয়ার পর রেকর্ড বই স্বাক্ষী হচ্ছে অভাবনীয় সব ঘটনার। গত জুনে রুয়ান্ডার বিপক্ষে ৬ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল মালি। সর্বনিম্ন দলীয় রানের রেকর্ড সেটিই। রান তাড়ায় রুয়ান্ডা জিতেছিল ৪ বলে। ওই ম্যাচ ছাড়াও ১০, ১১ ও ১৪ রানে অলআউট হওয়ার ইনিংসও আছে মালির মেয়েদের। আরেকটি ম্যাচে তাঞ্জানিয়ার মেয়েরা ২০ ওভারে করেছিল ২৮৫ রান, মালি জবাবে করতে পেরেছিল কেবল ১৭।