Tuesday, May 21, 2024
Homeশেরপুরঝিনাইগাতীতে অনৈতিক ভাবে সেচ সংযোগ প্রদান করার ফলে বন্ধ করার অভিযোগ

ঝিনাইগাতীতে অনৈতিক ভাবে সেচ সংযোগ প্রদান করার ফলে বন্ধ করার অভিযোগ

ঝিনাইগাতী সংবাদদাতা : শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলি গ্রামের বাসিন্ধা মুত আব্দুস সালামের ছেলে ফর্সা মিয়া অনৈতিক ভাবে সেচ সংযোগ প্রদান করার ফলে তা বন্ধ করার জন্যে শেরপুর জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন অধিদপ্তরে অভিযোগ প্রদান করেছেন। অভিযোগে প্রকাশ শেরপুর জেলা পল্লি বিদ্যুৎ সমিতির আওতাধীন ২০০০ ইং সালে নতুন লাইন নির্মাণের সময় স্টেক গ্রহক হিসাবে সেচ সংযোগ গ্রহণ করে বডিং লাইন নির্মাণ বাবাদ দুই লাখ টাকা খরচ করে কৃষি কাজে সেচ সরবরাহ করে আসছে। সেচ নীতিমালা অনুযায়ী ২০২৩ সালে উপজেলা সেচ কমিটির সভাপতি বরাবর লাইসেন্স এর জন্যে আবেন করেন । আবেদনটি বিএডিসসির এসও মাঠ পরিদর্শন না করে মোটা অংকের উৎকোচের বিনিময়ে লাইন্সে বাতিল করে অন্যকে প্রদান করেন বলে অভিযাগ করেছেন। আজবাহার আলীর ছেলে খলিলুর রহমানের নামে ১০ ফিট দুরুত্ব নতুন লাইসেন্স প্রদান করেন। ফর্সা মিয়া উপজেলা সেচ কমিটির সভাপতি সহ সংশ্লিষ্ঠ অন্যান্যদেরকে বিবাদী করে বিচার চেয়ে মামলা করেছেন। লাইসেন্স প্রাপ্ত খলিলুর রহমান জানান আমি বিএডিসি থেকে অনুমোদিত পেয়ে সেচের সংযোগ গ্রহণ করেছি মিটার লাগানো শুধু বাকি আছে মিটার লাগানোর তারিখও নির্ধারণ করাছিল এই সময়ের মধ্যেই ফর্সা মামলা করেছে । পল্লি বিদ্যুৎ ম্যানাজার জানান মামলা হয়েছে এখন মিটার লাগানো সম্ভব না কর্তৃপক্ষ যে সিদ্বান্ত দিবে সেটাই আমরা সন্মান করবো। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ভূইঁয়া জানান মামলা হয়েছে কোর্ট যে সিদ্ধান্ত দিবে সেটাই বাস্তবায়ন হবে। কোর্টে যেহেতু মামলা হয়েছে এ ব্যাপারে আমার করার কিছু নেই।

Most Popular

Recent Comments