Thursday, July 18, 2024
Homeজামালপুরদেওয়ানগঞ্জে দুর্গম চরাঞ্চলে সাপের কামড়ে মৃত্যু রোধে ৩ দিন ব্যাপী ড্রোন মহড়া

দেওয়ানগঞ্জে দুর্গম চরাঞ্চলে সাপের কামড়ে মৃত্যু রোধে ৩ দিন ব্যাপী ড্রোন মহড়া

খাদেমুল ইসলাম : জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে প্রতিবছর বন্যাকালে সাপের কামড়ে মৃত্যু হয় অসংখ্য মানুষের। বিশেষ করে যমুনা বহ্মপুত্র ও অন্যান্য নদ-নদী তীরবর্তী চরাঞ্চলে বন্যা ও বর্ষাকালে বিষাক্ত সাপের কামড়ে মৃত্যুর মুখে পড়তে হয় অনেক নারী,পুরুষ, শিশুকে। সর্প দংশনে মৃত্যু রোধে যৌথভাবে এক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে জার্মান সরকার ও বাংলাদেশ সরকার। স্বাস্থ্য অধিপ্তরের সহযোগিতায় এবং জার্মানির অ্যাসেন বিশ^বিদ্যালয়ের গবেষণায় ফ্লাড সেফ নামে একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। পাইলট এ প্রকল্পটি সফল হলে পুরোপুরিভাবে কাজ শুরু করবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাই ড্রোনের মাধ্যমে ওষুধ সরবরাহ করার জন্য মহড়া দিয়েছে ৩ দিন ব্যাপী। জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার একটি পৌরসভা সহ ৮টি ইউনিয়ন প্রতিবছর বন্যাকালে পৌর এলাকা ও ৮ ইউনিয়নের নিমাঞ্চল পানিতে প্লাবিত হয়। বিশেষ করে উপজেলার যমুনা নদীর ওপারের হলকার চর, টিনের চর সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ পানি বন্দী অসহায় হয়ে পড়ে। বন্যার সময় অসংখ্য মানুষ সাপের কামড়ে আক্রান্ত হয়। এ দিকে লক্ষ্য করেই এ পাইলট প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহযোগিতায় এবং জার্মানির অ্যাসেন বিশ^বিদ্যালয়ের ডিন ড. ডিটার মোরম্যান এর নেতৃত্বে একটি গবেষণা দল দেওয়ানগঞ্জ পৌর হেলিপ্যাড থেকে ড্রোনের মাধ্যমে মহড়া কার্যক্রম শুরু করে। ড. ডিটার মোরম্যান নয়াদিগন্তকে জানান, ড্রোনের মাধ্যমে মহড়া ও অন্যান্য কার্যক্রম সফল হলে স্থায়ীভাবে ফ্লাড সেফ (ফ্লুড নেটজ) প্রকল্পটিতে পুরোদমে কাজ শুরু করা হবে। এই টিমের অন্যান্য সদস্য হচ্ছেন, মোঃ এহিয়া, গ্রুপ ক্যাপ্টেন কারিগরি সহায়ক, নাসির উদ্দিন ইনফরমেশন সিস্টেম রিসার্চ ফেলো, জার্মানির বিশিষ্ট সাংবাদিক অলিভার জি বিকার, ড. আরিফ, মি. সাদমান, ইভাকমিগ সহ অন্যান্য।

Most Popular

Recent Comments